বাংলাদেশে ধনী-গরিবের বৈষম্য কিছুটা কমেছে: ডঃ কাজী খলীকুজ্জমান (বিবিসি বাংলা)

আন্তর্জাতিক সেবা সংস্থা অক্সফামের এক সমীক্ষায় বিশ্বব্যাপী সম্পদের বৈষম্য বৃদ্ধির সম্ভাবনার কথা বললেও বাংলাদেশে ধনী গরিবের বৈষম্য সার্বিকভাবে কিছুটা কমেছে বলে মনে করেন অর্থনীতিবিদ ড: কাজী খলীকুজ্জমান আহমদ ।
অক্সফামের সমীক্ষায় বলা হয়েছিলো: বিশ্বের ধনী ১% মানুষের যে পরিমাণ সম্পদ রয়েছে আগামী বছর তা বাকি ৯৯% জনগণের মোট সম্পদের পরিমাণকে ছাড়িয়ে যাবে।সংস্থাটি বলছে আগামী বছর বিশ্বের মোট সম্পদের ৫০%-এর মালিকানা চলে যাবে ধনীদের হাতে।

এ প্রেক্ষাপটে বাংলাদেশের অবস্থান কি জানতে চাইলে মিস্টার আহমদ আজ সকালের অধিবেশনে বিবিসি বাংলাকে বলেন বাংলাদেশে অবস্থা অত প্রকট নয়।

পথশিশু বা পিছিয়ে পড়া অন্য গোষ্ঠীগুলোকে অর্থনীতিতে অবদান রাখার সুযোগ করে দিতে হবে বলে মনে করেন ড: খলীকুজ্জামান আহমদ।
পথশিশু বা পিছিয়ে পড়া অন্য গোষ্ঠীগুলোকে অর্থনীতিতে অবদান রাখার সুযোগ করে দিতে হবে বলে মনে করেন ড: খলীকুজ্জামান আহমদ।
পথশিশু বা পিছিয়ে পড়া অন্য গোষ্ঠীগুলোকে অর্থনীতিতে অবদান রাখার সুযোগ করে দিতে হবে বলে মনে করেন ড: খলীকুজ্জামান আহমদ।
তিনি বলেন, “গত কয়েক বছরে সার্বিকভাবে বৈষম্য কিছুটা কমেছে, যদিও সেটি খুব বেশি না। তবে দারিদ্র অনেক কমেছে”।
মিস্টার আহমদ বলেন বাংলাদেশে এখন ২৪-২৫ শতাংশ দারিদ্র। অতি দারিদ্র রয়েছেন ১২ শতাংশের মধ্যে। এটা দশ বছর আগেও দারিদ্র ছিল ৪০% আর অতি দারিদ্র ছিল ১৯%।
তিনি বলেন সবচেয়ে ধনী যে পাঁচ শতাংশ তাদের আয়ের অংশ জাতীয় আয়ের ২৫/২৬ শতাংশ আর অতি দরিদ্র যে পাঁচ শতাংশ তাদের আয়ের অংশ এক শতাংশের কম। সেখানেও কিছুটা উন্নতি হলেও এখনো খুব প্রকট রয়ে গেছে।

তৈরি পোশাক খাত বাংলাদেশের নারীদের জন্য ব্যাপক কর্মসংস্থানে ভূমিকা রেখেছে।
তৈরি পোশাক খাত বাংলাদেশের নারীদের জন্য ব্যাপক কর্মসংস্থানে ভূমিকা রেখেছে।

Garments in Bangladesh, Photo Credit: BBC
Garments in Bangladesh, Photo Credit: BBC

অর্থনীতিকে সুষ্ঠু করতে হলে ও মানবকেন্দ্রীক করতে হলে সবার অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।
মিস্টার আহমদ বলেন বলেন কিছু গোষ্ঠী আছে যাদের দিকে প্রয়োজনীয় দৃষ্টি দেয়া হয়নি। যেমন পথশিশু, পরিচ্ছন্নতা কর্মী, পাহাড়ি, হাওড়ে যারা বাস করে, প্রতিবন্ধী- এদের দিকে তেমন দৃষ্টি দেয়া হয়নি।
তিনি বলেন টেকসই অর্থনীতি না হলে দীর্ঘমেয়াদী নানা সমস্যা সৃষ্টি হবে। টেকসই অর্থনীতিতে সবার ন্যায্য অধিকার থাকতে হবে।সেটি হলে তারা অবদান রাখতে হবে। তাদের জীবন মানের উন্নতি হলে সার্বিক ভাবে দেশের উন্নতি হবে।

Date: 2015-01-20 Published On: bbc.co.uk/bengali
Source: http://www.bbc.co.uk/bengali/news/2015/01/150120_rh_kazi_qalikuzzaman

About the author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *