২০৪১ সালে উন্নত দেশ গঠনে পল্লী ঋণ ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর জন্য ডঃ খলীকুজ্জামানের আহবান

1602-qk-ThakurgaonNews title(13 Feb 16): ২০৪১ সালে উন্নত দেশ গঠনে পল্লী ঋণ ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর আহবান
Source: Kaler Kantho- http://www.kalerkantho.com/online/national/2016/02/13/324495

২০২১ সালে মধ্য আয়ের ও ২০৪১ সালে উন্নত দেশ গঠনের পরিকল্পনাকে এগিয়ে নেয়ার জন্য মানব উন্নয়ন সূচককে প্রাধান্য দিয়ে পল্লী ঋণ ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর আহবান জানিয়েছেন পল্লী কর্মসহায়ক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ । তিনি বলেন,এ জন্য গতানুগতিক ক্ষুদ্রঋণ সংস্কৃতির পরিবর্তে উপযুক্ত পরিমাণ ঋণ সহায়তা দিয়ে সরকার ও কল্যাণধর্মী প্রতিষ্ঠানসমূহকে প্রান্তিক জনগোষ্ঠির পাশে দাঁড়াতে হবে। এই ঋণের মুখ্য উদ্দেশ্য থাকবে জন্ম থেকে মৃত্যু পর্যন্ত প্রতিটি মানুষের সক্ষমতা বিশেষ করে দক্ষতা, কর্মসংস্থান, স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও সৃজনশীলতা বিকাশে মানবসন্তানকে উপযোগী করে গড়ে তোলা। তিনি বলেন, দারিদ্র্য বিমোচনে স্বাধীনতা পরবর্তীতে ক্ষুদ্র ঋণ সহায়ক ভূমিকা রাখলেও প্রকৃতঅর্থে মানব মর্যাদা সুপ্রতিষ্ঠিত হয় নাই। উন্নয়ন ও সহায়তার নামে বিগতদিনে জাতীয় অর্থের অপচয় করো হয়েছে এবং অর্থ গ্রহণে জাতীয় মর্যাদাকে বাদ দিয়ে বিদেশীদের দ্বারস্থ হতে দেখা গেছে। যা একটি জাতির জন্য মর্যাদাকর হতে পারে না। আজ শনিবার আইডিইবি কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির ফেব্রুয়ারি মাসিক সভার লেকচার সেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ড. আহমদ এসব কথা বলেন। ড. খলীকুজ্জামান বলেন, দারিদ্র নিরসন কর্মসূচিকে হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে কিছু মানুষ ধনী হলেও দারিদ্র্য বিমোচন হার মাত্র ৯.৭ভাগ অর্জিত হয়েছে। তিনি বলেন, নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মা সেতু নির্মাণ বিশ্বে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে। বিশ্ব উপলব্ধি করতে পেরেছে বাংলাদেশ সকল প্রতিকূলতা মোকাবেলায় সক্ষম। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাই জাতির মূল প্রেরণা শক্তি উল্লেখ করে তিনি বলেন, এ চেতনাকে বাদ দিয়ে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ নির্মাণের পথে এগিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। তিনি মানুষকে কেন্দ্র করে এগিয়ে যাওয়ার জন্য প্রত্যেক নাগরিকের মানবাধিকার নিশ্চিত করার উপর গুরুত্বারোপ করেন। ড. কাজী খলীকুজ্জামান আহমদ তৃণমূল পর্যায়ে প্রযুক্তিকে এগিয়ে নেয়ার জন্য আইডিইবি’র কার্যক্রমের ভূঁয়সী প্রশংসা করে বলেন, পল্লী কর্মসহায়ক ফাউন্ডেশন পল্লী জনগোষ্ঠির সার্বিক উন্নয়নে আইডিইবি’র সাথে যৌথ কার্যক্রম পরিচালনার লক্ষ্যে সমঝোতা স্বাক্ষর করেছে। আগামী উভয় প্রতিষ্ঠান এ সমঝোতার আলোকে প্রান্তিক জনগোষ্ঠির সার্বিক উন্নয়নে কাজ করতে সক্ষম হবে। আইডিইবি’র সভাপতি এ কে এম এ হামিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মো: শামসুর রহমান।

About the author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *